সর্বশেষ

প্রেসক্লাবে শিক্ষকদের অবস্থান কমর্সূচি শুরু

ই-বার্তা ডেস্ক।।  চাকরি স্থায়ীকরণ দাবিতে অনিদির্ষ্টকালের জন্য অবস্থান কমর্সূচি পালন শুরু করেছে সেকেন্ডারি এডুকেশন কোয়ালিটি অ্যান্ড অ্যাকসেস এনহান্সমেন্ট প্রজেক্টে (সেকায়েপ) নিয়োগ পাওয়া অতিরিক্ত শ্রেণি শিক্ষকরা (এসিটি)। 

গতকাল সকাল থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ কমর্সূচি পালন করছেন তারা।

চাকরি স্থায়ীকরণ করা না হলে ঘরে না ফেরার কথা জানিয়ে বাংলাদেশ এসিটি অ্যাসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কৌশিক চন্দ্র বমর্ণ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাযার্লয় থেকে চাকরি স্থায়ীকরণের সুপারিশের চিঠি  দেওয়া হলেও শিক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের রাখতে চাচ্ছে না। 

কৌশিক চন্দ্র বমর্ণ বলেন, মৌখিক আশ্বাসে তারা এতদিন ক্লাস নিয়ে এসেছেন।  এবার তাদের চাকরি স্থায়ীকরণের লিখিত আদেশ পেলেই স্কুলে ফিরে যেতে চান।

অবস্থান কমর্সূচিতে অংশ নেয়া শিক্ষকরা বলেন, দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় যখন মানসম্মত শিক্ষকের অনুপস্থিতি তখনই ২০১৫ সালে সরকার প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থার প্রধান সমস্যা চিহ্নিত করা শুরু করে। বিশ্বব্যাংক ও সরকারের যৌথ উদ্যোগে ও অথার্য়নে সেকাযেপ প্রকল্পের অধীনে ইংরেজি, গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ে অতিরিক্ত শ্রেণি শিক্ষক (এসিটি) হিসেবে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫ হাজার ২০০ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়।

সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বরে প্রকল্পের এসব মেধাবি ও তরুণ শিক্ষকদের বিনা শতের্ সরকারি বিশেষ আদেশের মাধ্যমে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে চাকরি স্থায়ী করার কথা থাকলেও গত ১৩ মাসেও তা চুড়ান্ত করা হয়নি।  অনতিবিলম্বে এ ব্যাপারে একটা কাক্সিক্ষত সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেন তারা।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন শিক্ষক নেতা রাফিউল ইসলাম রাফি, মো. শহিদুল ইসলাম, মো. রইজ উদ্দিন প্রমুখ।

ই-বার্তা/মোঃ সালাউদ্দিন সাজু