সর্বশেষ

সাহসী নারীর প্রশংসা

ই-বার্তা ডেস্ক ।।রাস্তায় এক নারীকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেছিলেন এক যুবক। কিন্তু সে কাজের পরিণতি যে এতো ভয়ঙ্কর হবে, সেটা কল্পনাও করতে পারেননি ওই যুবক।

 

ওই নারীর সাহসিকতার ঘটনা এখন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে গেছে। অনেকেই এই ঘটনায় সাহসী নারীর প্রশংসা করছেন। সেই সঙ্গে বলছেন, কর্মের ফল পেয়েছেন ওই যুব্ক।

 

ব্রাজিলের রাজধানী রিও ডি জেনিরোর রাস্তায় রাতেরবেলা ক্যাবের জন্য অপেক্ষা করছিলেন এক নারী। ক্যাব আসতে একটু দেরি হচ্ছিল, সে সময় বাইকে আসা এক যুবক তাকে লিফ্ট দেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন। বিশ্বাস করে ওই নারী বাইকের পেছনে বসেন।

 

কিছুদূর এগিয়ে যাওয়ার পর ওই নারী মোবাইল পকেটে রাখতে যাবেন, তখন ওই যুবক বলেন মোবাইলটি তাকে দিয়ে দিতে। পাশাপাশি তিনি জানান, অস্ত্র আছে তার কাছে। সে কারণে ওই নারী যেন চুপ করে বসে থাকেন।

 

কিন্তু সেই নারী যে চুপচাপ বসে থাকার পাত্রী নন, সেটা ওই ছিনতাইকারীর জানা ছিল না। তাই অস্ত্রের কথা বলার পর অস্ত্র বের করার আগেই দু’ঘুষি পড়ে গেছে ওই যুবকের মুখে। তার পরই কয়েকটি লাথি। আর সেই লাথি যার তার নয়। ‘আল্টিমেট ফাইটিং চ্যাম্পিয়নশিপ’-এর ফাইটার পলিয়ানা ভিয়ানার।

 

সে দেশের সংবাদ মাধ্যমকে পলিয়ানা জানান, উনি আমার কাছেই বসেছিলেন। তাই আমার মনে হলো তার কাছে যদি সত্যিই বন্দুক থাকে, তার পরেও তা বের করার সময় পাবে না। তাই দু’টি ঘুষি চালিয়ে দিলাম আমি।

 

আল্টিমেট ফাইটিং চ্যাম্পিয়নশিপের প্রেসিডেন্ট ডানা হোয়াইট ওই যুবক ও নারীর ছবি দিয়ে ঘটনার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। তার পর থেকেই পলিয়ানাকে দেখে সাহস সঞ্চয় করেছে অনেক মানুষ।

 

 

ই-বার্তা /  তামান্না আলী প্রিয়া