সর্বশেষ

আজই শেষ হচ্ছে একুশে বইমেলা

আজ শেষ হচ্ছে অমর একুশে বইমেলা। বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে পর্দা নামছে মাসব্যাপী এ বইমেলার। এবার দর্শনার্থীদের পাশাপাশি তুলনামূলক বেশি বই বিক্রি হয়েছে। আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আয়োজক বাংলা একাডেমি এবারের মেলার সার্বিক তথ্য তুলে ধরবেন।  

এবারের বইমেলায় ৫২৩টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এছাড়াও ১৮০টি লিটলম্যাগকে স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০৪টি প্রতিষ্ঠানকে ১৫০টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৩৯৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৬২০টি ইউনিটসহ মোট ৪৯৯টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৭০টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী জানান, এবারের মেলার ২৬তম দিন পর্যন্ত ভালো চললেও, বৃষ্টির কারণে কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। তবুও মেলার সার্বিক দিক নিয়ে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।

গত ১ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেলার উদ্বোধন করার দিন থেকে টানা দু’দিন ছুটির দিন থাকায় প্রথম থেকেই মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল। বসন্ত বরণ আর বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের পর থেকে মেলায় পূর্ণতা আসে। একুশে ফেব্রুয়ারির দিনে চোখে পড়ার মত ভিড় লক্ষ্য করা গেছে বইমেলায়। যদিও সেদিন পুরান ঢাকার চকবাজারে মর্মান্তিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কিছুটা প্রভাব পড়েছিল গোটা রাজধানীজুড়েই।

এবার মেলায় বাংলা একাডেমিসহ ২৪টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানকে ২৪টি প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ দেয়া হয়। লিটল ম্যাগাজিন চত্বরে ১৮০টি লিটলম্যাগকে ১৫৫টি স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ২৫টি স্টলে দুটি করে লিটল ম্যাগাজিনকে স্থান দেয়া হয়েছে। এছাড়াও অন্য আরো  ১৩০টি প্রতিষ্ঠানও স্টল পেয়েছে।

উল্লেখ্য, এবার প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত গ্রন্থমেলা উন্মুক্ত থাকে। ছুটির দিনে বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চলে। আর ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত চালু ছিল।

ই-বার্তা// আরাফাত ইসলাম শুভ