সর্বশেষ

আসছে বৃন্ত, সাহিত্য-সংস্কৃতির ছোট কাগজ

ই-বার্তা ডেস্ক ।।  আসছে বৃন্ত,   “বৃন্ত” সাহিত্য-সংস্কৃতির ছোট কাগজ। সম্পাদক হাসনাত আসিফ কুশল।

তিনি তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, “বৃন্ত” সাহিত্য-সংস্কৃতির ছোট কাগজ নিয়ে তার মত করে কথা বলেন। সেই সাথে “বৃন্তের”  লেখক এবং “বৃন্তের” সহকারীদের ও ধন্যবাদ জানায় তিনি।

‘নিজের নাম নিজেই লিখছি। খানিকটা লজ্জা লাগছে। আবার ভালোও লাগছে। বৃন্তের প্রথম সংখ্যা বের হয়েছিলো দুই বছর আগে। দ্বিতীয় সংখ্যা বের হবে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি। লেখা, প্রচ্ছদ চূড়ান্ত। এখন চলছে ছাপার কাজ। ভালোই লাগছে কাজটি করতে। একবার মনে হয়েছিলো আর কোনো সংখ্যা বের করতে পারবো না। কিন্তু এখন প্রকাশ যখন দ্বারপ্রান্তে, তখন মনে হচ্ছে, পারছি তো। নিজের জমানো টাকা দিয়ে বের করতে পারছি বৃন্ত। প্রয়োজনীয় টাকা জমলো এখানে-সেখানে যে একটু আধটু লেখালেখি করি, সেখান থেকে। অর্থাৎ, লেখালেখি থেকে পাওয়া সম্মানী দিয়ে বের করতে পারছি বৃন্তের দ্বিতীয় সংখ্যা। এ এক অন্যরকম আনন্দ।’

‘বৃন্তের এ সংখ্যায় থাকছে প্রবন্ধ, কবিতা, গল্প ও অন্যান্য লেখা। লেখক তালিকায় আছেন-
প্রবন্ধ: সুমন রহমান, অরুন্ধুতি, সুস্মিতা শ্যামা, সুষ্মিতা কর ও পারিসা।
কবিতা: কাকলি সেনগুপ্ত, নন্দিতা উর্মি, অপরাজিতা অর্পিতা, তানজিমুল ইসলাম, রাশেদ রানা, শাব্দিক এনামূল হক, সমীর দাস, হাসনাত আসিফ কুশল, সুনীল বরুনা, তামান্না আলী প্রিয়া, আশিকুজ্জামান, হাসনাত আবীর অঙ্গন ও সামিম রহমান ভূঁইয়া রুদ্র।
ছোটগল্প: তাসনিম মিম ও নিবিড় হক।
ভ্রমণ-পরিভ্রমণ: কানিজ ফাতেমা ও সাফায়েত কিবরিয়া সাকিব।
সংস্কৃতি: আপন দাস।
অনুভবপত্র: হিমাদ্রী চৌধুরী।’

‘লেখকদের মধ্যে কথাসাহিত্যিক সুমন রহমান আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রদ্ধেয় অধ্যাপক ও ডিন। অন্য লেখকদের বেশিরভাগই তরুণ ও রাজধানীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থী। কয়েকজন আমার সহপাঠী। বন্ধু-স্বজন-অন্যরা। কাকলি সেনগুপ্ত ও সমীর দাস ভারতীয় লেখক।’

‘বৃন্তের এ সংখ্যার প্রচ্ছদ এঁকেছেন ইবনে আমান। নামলিপি হাবিবুর রহমান হাবু। ছেপে সহযোগিতা করছেন মুহম্মদ রবীউল আলম। বৃন্তের এ সংখ্যার মূল্য রাখা হয়েছে ২০ টাকা।
বৃন্তের যাত্রা শুরুর কথা হয়েছিলো চায়ের আড্ডায়। বিভিন্নজনের শুভকামনায়। ২০১৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে প্রকাশ করেছিলাম প্রথম সংখ্যা। লক্ষ্য ছিলো ক্যাম্পাসে একঝাঁক তরুণ লেখক তৈরি করা। এই লক্ষ্যে আমি এবং আমরা এখনো অবিচল। বৃন্তের চলতি সংখ্যার সম্পাদনা পর্ষদের দুই সদস্য বন্ধু মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম ও কানিজ ফাতেমা। তারা আমাকে নানাভাবে সহযোগিতা করেছেন। তাদের জানাই কৃতজ্ঞতা। এ সংখ্যার ব্রান্ডিং টিমে আছেন হাসমি জাহান সেতু ও তামান্না আলী প্রিয়া। তাদেরকেও জানাই শুভেচ্ছা।’

সবার শুভেচ্ছা ও দোয়ায় বৃন্ত এগিয়ে যাবে এই প্রত্যাশা করি।

-হাসনাত আসিফ কুশল

ই-বার্তা /  তামান্না আলী প্রিয়া